July 10, 2020

MIRROR NEWS

re-flexion of truth

ভারতে ৫৯ টি অ্যাপ নিষিদ্ধ হওয়ায় গভীর উদ্বেগে চিন

অনিকেত দেবনাথঃ     ২৯ জুন,২০২০,কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রক তরফে ৫৯ টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হয়েছে ভারতে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়, “ভারতীয় গোয়েন্দারা জানিয়েছে যে, অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস প্লাটফর্মে থাকা নির্দিষ্ট মোবাইল অ্যাপগুলোর অপব্যবহার করে ভারতের গ্রাহকদের গোপনীয় তথ্য সংগ্রহ ও পাচার করছে এই অ্যাপ কোম্পানি গুলি। সেই কারণেই সমস্ত দিক খতিয়ে দেখে ভারতে অ্যাপ গুলি নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে”।

এই কড়া সিদ্ধান্তের পরেই কার্যত নড়েচড়ে বসেছে চিন।

চিনের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান গভীর উদ্বিগ্ন প্রকাশ করে জানিয়েছেন, “ভারতের এই ঘটনা জানার পরে চিন অত্যন্ত দুশ্চিন্তায় রয়েছে। পরিস্থিতি যাচাই করে দেখা হচ্ছে। আমরা সর্বদাই আন্তর্জাতিক ব্যবসার ক্ষেত্রে সমস্ত নিয়ম ও ধারা মেনে কাজ করি। তাহলে ভারতীয় সরকার এই দাবি করতে পারেনা। ভারত সরকারকে এই ব্যপারে সমস্ত তথ্য প্রমাণ দিতে হবে চিনা গোয়েন্দাদের”।

কেন্দ্রীয় সরকার সূত্রে খবর, এইসব অ্যাপের মাধ্যমে স্পাইওয়ার ও ম্যালওয়ার ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে ইউসারদের ফোনে। এরফলে তাদের ফোনের মাধ্যমে সমস্ত গোপনীয় তথ্য পেয়ে যাচ্ছে কোম্পানিগুলি।

এই অ্যাপ গুলির মধ্যে তিনটি প্রধান অ্যাপের ব্যপারে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ভারত সরকার। এগুলি হল টিকটক, ক্যাম স্ক্যানার ও ইউসি ব্রাউজার। কারণ এই তিনটি অ্যাপের গ্রাহকই সবথেকে বেশি ভারতে।

ক্যাম স্ক্যানার এর মাধ্যমে বহু লক্ষ সরকারি নথিপত্র বা ব্যাক্তিগত প্রমাণ পত্র মোবাইল দ্বারা স্ক্যান করা হয়। সেই সব নথির আর কোনও গোপনীয়তা রয়েছে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে গোয়েন্দা বিভাগের।

তবে মনে করা হচ্ছে কেবলই অ্যাপ বা তার গোপনীয়তাই যে এই সিদ্ধান্তের কারণ তা নয়। গত ১৫ জুনের লাদাখের ২০ জন সেনা শহীদ হওয়ার প্রথম বদলা এটা।

কারণ মূলত তারপর থেকেই ভারতে চিনা পণ্য বয়কটের ডাক আরও জোরদার হয়ে উঠেছে ভারতে।

PAYTM

GOOGLE PAY