August 6, 2020

MIRROR NEWS

re-flexion of truth

সিবিএসসির সিলেবাস রদ-বদলে স্তম্ভিত মমতা

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সিলেবাসে কাট-ছাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিবিএসসি।

সেই অনুযায়ী,বুধবার নতুন সিলেবাস ঘোষণা করে সিবিএসসি কর্তৃপক্ষ।

তাতে দেখা যায় গণতান্ত্রিক অধিকার, ভারতে খাদ্য নিরাপত্তা, যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো, নাগরিকত্ব এবং ধর্মনিরপেক্ষতার মতো অধ্যায় ছেঁটে ফেলা হয়েছে।

এবার তা নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানালেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

টুইট করে তিনি জানান,

“করোনা পরিস্থিতিতে সিলেবাস কাটছাঁটের দোহাই দিয়ে নাগরিকত্ব, যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো, ধর্মনিরপেক্ষতা, দেশভাগের মতো বিষয়কে বাদ দিয়েছে কেন্দ্র সরকার,

আমি স্তম্ভিত”।

সঙ্গে সঙ্গে মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রীকে এই বিষয়টির দিকে নজর দেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন।

তবে শুধু মুখ্যমন্ত্রী নন।

প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

তিনি এই সিদ্ধান্তকে ‘বিপজ্জনক পদক্ষেপ’ বলে আখ্যা দেন।

এই প্রসঙ্গে কোভিড পরিস্থিতির কারণে ছাত্রছাত্রীদের যে নজিরবিহীন পরিস্থিতির সামনে পড়তে হয়েছে সে কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছিল সিবিএসই।

যদিও কেন্দ্রীয় বোর্ডের এই সিদ্ধান্ত সামনে আসার পর থেকেই তৈরি হতে শুরু করেছে বিতর্ক।

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক কি কি বিষয় বাদ দেওয়া হয়েছে সিবিএসসি’র নতুন সিলেবাসে…

 

  • একাদশ শ্রেণির রাষ্ট্রবিজ্ঞান থেকে পুরোপুরি বাদ গিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো, নাগরিকত্ব, জাতীয়তাবাদ এবং ধর্মনিরপেক্ষতা।
  • স্থানীয় প্রশাসন সংক্রান্ত অধ্যায় থেকে দুটি অংশ বাদ দেওয়া হয়েছে। 
  • দ্বাদশ শ্রেণির রাষ্ট্রবিজ্ঞান থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে ‘সমসাময়িক বিশ্বে নিরাপত্তা’, ‘পরিবেশ এবং প্রাকৃতিক সম্পদ’ ও ‘ভারতের সামাজিক ও নয়া সামাজিক আন্দোলন।
  • অর্থনীতি থেকেও বাদ দেওয়া হয়েছে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়।
  • ‘পরিকল্পনা উন্নয়ন’, ‘ভারতীয় অর্থনীতির উন্নয়নের ধারা বদল’-এর পাশাপাশি বাংলাদেশ, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, মায়ানমারের মতো প্রতিবেশী দেশগুলির সঙ্গে ভারতের বৈদেশিক সম্পর্কও বাদ পড়েছে।
  •  ছেঁটে ফেলা হয়েছে ‘গণতন্ত্র ও বৈচিত্র্য’, ‘জাত-ধর্ম-লিঙ্গ’ শীর্ষক অধ্যায়টি।

সিবিএসসির এই নতুন সিলেবাস নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজাও।

অনেকের মতে, যে বিষয়গুলি বিজেপি তথা সঙ্ঘ পরিবারকে মতাদর্শগত ভাবে চ্যালেঞ্জ করে ঠিক সেই সেই অধ্যায়গুলিই বাদ দিয়েছে বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

উঠে এসেছে অটলবিহারী বাজপেয়ীর আমলের মুরলী মনোহর যোশী’র শিক্ষায় গৈরিকীকরণ এর বিষয়।

 

PAYTM

GOOGLE PAY