August 12, 2020

MIRROR NEWS

re-flexion of truth

করোনা সন্দেহে ফেলে দেওয়া হল সদ্যজাতকে

সাধনা মিস্ত্রীঃ করোনার মৃতদেহ নিয়ে অসূচি ব্যপারটা এই প্রথম নয়।

কেজরিওয়াল সরকারের জামানায় দিল্লীর একটি শশানের ভাইরাল ভিডিয়োটি বোধহয় এখনো ভুলে যায়নি দেশবাসী।

আবার আর জি করের বাইরে পড়ে থাকা মৃতদেহ!

সেটাও ভুলে যাওয়ার কথা নয়।

অনেকটা সেই রকমই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হল অন্ধ্রপ্রদেশের কর্নুল জেলায়।

সেই গ্রামেরই এক বাসিন্দার সন্তানের  কোভিড-১৯ পজিটিভ হওয়ায় গ্রামের প্রবীণরা তাকে গ্রামে শেষকৃত্য করার অনুমতি দেননি।

ফলে যৌথ সম্মতিতে দেহ ফেলে দেওয়া হয় পার্শ্ববর্তী খালে।

সাব-ইন্সপেক্টর সুধাকর রেড্ডি বলেন,

“অভিযুক্তের নাম সানসা ভালি।

তিনি কুর্নুল জেলার কোটাপাডু গ্রামের বাসিন্দা।

শুক্রবার সন্ধ্যায় তিনি এক মৃত সন্তান প্রসব করেন।

“সর্বশেষ আচারের জন্য ভালি শিশুটিকে তার গ্রামে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন।

তবে গ্রামের প্রবীণরা তাকে তা করতে দেয়নি।

কারণ তাদের সন্দেহ যে শিশুটির কোভিড -১৯ সংক্রমণ রয়েছে।

তখন ভালি মৃত শিশুর দেহ ছাবলু গ্রামের নিকটবর্তী কর্নুল- কুদ্দপাহ খালে ফেলে দেন।

স্থানীয় বাসিন্দারা ১৮ জুলাই সকালে দেহটি খালে ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয়।

তদন্ত চলাকালীন পুলিশ তার হাতের একটি ট্যাগ থেকে শিশুটির পরিচয় পায়।

তারা ভালি ও তার পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে দেহটি হস্তান্তর করে।

পরে পরিবার শেষকৃত্যের জন্য দেহ গ্রামে নিয়ে যান।

পুলিশ জানিয়েছে,

গর্ভজাত বালিকা শিশুটি মৃত ছিল বলে তারা ভালির বিরুদ্ধে কোনও মামলা করেনি।

PAYTM

GOOGLE PAY