June 24, 2021

টুম্পাই আমাদের আবেগ, আন্দোলনের হাতিয়ার।

যখন ছোট ছিলাম,  আমার এক বন্ধু ছিল। ওদের বাড়ি ছিল মেদিনীপুর। ওর বাবা গানের জগতের মানুষ। মূলত গন সংগীত,  হেমাংগ বিশ্বাস,

মাটির গান, আন্দোলনের গান, মানুষের গান গাইতেন। আমার ওই বন্ধুটিকে কখনো কখনো টুম্পা বলে রাগাতাম। তবে ও রাগতো কম,  হাসতো

বেশি।  নিজেই মজা করে বলতো আমরা তো  টুম্পা।

তবে এখন শুনেছি বামপন্থী দের নতুন সারির মুখে আমার সে বন্ধুটি আছে। বামপন্থী রা ফের নতুন করে জেগে উঠছে।  দেখে ভালো লাগছে।
কোনো কোনো টুম্পা দিক ভ্রষ্ট হলেও আন্দোলন কিন্তু বারবারই আ-বেগ পেয়েছে সেই মেদিনীপুরের মাটি থেকেই।
আমাদের মিরর নিউজ ডট ইনেই দেখলাম আমাদের প্রোডিউসার খবর আপডেট করেছে
প্রায় ১০ লক্ষ মানুষ আগামী ব্রিগ্রেড এর সমাবেশে এই টুম্পা গানের আদর্শেই নিজেদের আরো একবার লালে লাল করে তুলবে,
এমনই দাবি বামেদের।
কেন না টুম্পা যে ভাইরাল।
আমার সৌভাগ্য হয়েছিল একজন মানুষের সংগ পাওয়ার। বামপন্থী মানুষ  অজিত পাণ্ডে।
তিনি মজা করেই আমাকে হাসতে হাসতে বলতেন বামেদের সভা মানেই টাকা নেই ফাণ্ডে ডাক অজিত পাণ্ডে।
তিনি সভায় গন সংগীত গাইতেন।
আর আজ সময় ধরার কি ফিকির।
টুম্পা আজ গন সংগীত।  টুম্পা আজ সময়ের সংগে তাল মিলিয়ে অজিত পাণ্ডে,  শুভেন্দু মাইতিদের যে হারিয়ে নতুন বাম ধারার পালে হাওয়া দেবে তা
আনন্দের বই কি?
বাম কং শিবিরে অনেক হাওয়া বদলই হল। কংগ্রেস এখনো নড়াচড়া শুরু না করলেও, বন্ধু বামেদের
টুম্পা নামের মানুষ ধরার কলে আশা করি
আপত্তি থাকবে না। আফটার অল ভোটব্যাংক বলে কথা।
https://posteditorial.blogspot.com/2021/02/blog-post_20.html