April 16, 2021

মূক এবং বধির শিশুদের বধিরতা দূরীকরণে সাফল্য এসএসকেএম

মূক এবং বধির শিশুদের বধিরতা দূরীকরণে সাফল্য পেল এসএসকেএম হাসপাতালের ইএনটি বিভাগ।

এইরকম শিশুরা অন্তঃকর্ণ প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে ফিরে পায় তাদের শ্রবণ ক্ষমতা।

বেসরকারি হাসপাতালে যার খরচ প্রায় বারো থেকে ষোলো লক্ষ টাকা।

কিন্তু এসএসকেএম হাসপাতালে এই চিকিৎসা করা হচ্ছে বিনামূল্যে।

গত ৩ বছরে ৬৫ জন শিশুর অন্তঃকর্ণ প্রতিস্থাপন বা ককলিয়া ইমপ্ল্যান্ট করা হয়েছে এসএসকেএম হাসপাতালে ।

গত বুধবার আন্তর্জাতিক শ্রবণ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত করা হয়েছিল এক অনুষ্ঠানের।

যেখানে ছিল এই খুদে শিশুরা এবং তাদের মা বাবারাও।

অনুষ্ঠানে শিশুরা কবিতা বলে এবং জাতীয় সঙ্গীত বলে।

তা চিকিৎসকদের সাফল্যের ইঙ্গিত দেয়।

সদ্য শুনতে পাওয়া এই শিশুরা নতুন জগত দেখতে পেয়ে খুশি।

ইএনটি বিভাগের বিশেষজ্ঞ ডাক্তার অরুনাভ সেনগুপ্ত জানান, বাচ্চা জন্মগ্রহন করার ৩ থেকে ৪ মাসের মধ্যে যদি আটকে ওঠে, ৬ মাসের মধ্যে যদি তাকাতে সমস্যা হয় বা ১ বছরের মধ্যে যদি বাবা মা বলার টান না দেখা যায় তাহলে দ্রুত এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে আসবেন।

এসএসকেএম হাসপাতালের পাশাপাশি কলকাতা মেডিক্যাল কলেজেও শুরু হয়েছে এই চিকিৎসা ।