April 16, 2021

টিকাকরণে আমেরিকাকে টেক্কা ভারতের

দেশে উত্তরোত্তর বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী,

এ পর্যন্ত দেশে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১,২৯,২৬,০৬১ জন।

কিন্তু সেই সঙ্গে পাল্লা  বৃদ্ধি  টিকাকরণেরও।

যার মাধ্যমে বিশ্বে দৈনিক টিকাকরণে শীর্ষস্থান দখল করেছে ভারত।

এমনকি এই গতিতে পিছনে পড়ে গেছে মার্কিন প্রদেশও।

দেশে এখন রোজ গড়ে ৩০ লক্ষ ৯৩ হাজার ৮০০-র বেশি মানুষ করোনা টিকা পাচ্ছেন।

তবে জো বাইডেন ক্ষমতায় আসার পর টিকাকরনে গতি বেড়েছিল আমেরিকায়।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন টুইট করে জানিয়েছিলেন,

২০২১ সালের এপ্রিল মাসের ১৯ তারিখের মধ্যেই আমেরিকার প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিক করোনা টিকা পেয়ে যাবেন।

সেই লক্ষ্যমাত্রা পূরণের জন্য আমেরিকায় ঝড়ের গতিতে করোনা টিকাকরণ হচ্ছে।

তবে ভারতের ‘জন আন্দোলন’ সেই গতিকেও হার মানিয়েছে।

এ পর্যন্ত দেশে মোট করোনা টিকা পেয়েছেন ৮ কোটি ৭০ লক্ষ ৭৭ হাজার ৪৭৪ জন।

শুধুমাত্র গত ২৪ ঘণ্টাতেই করোনা টিকা পেয়েছেন ৩৩ লক্ষ ৩৭ হাজার ৬০১ জন।

এখন পর্যন্ত মোট ১৩ লক্ষ ৩২ হাজার ১৩ লক্ষ ৩২ হাজার ১৩০টি টিকাকরণ কর্মসূচি আয়োজিত হয়েছে দেশে।

যার মধ্যে ৮৯ লক্ষ ৬৩ হাজার ৭২৪ জন স্বাস্থ্যকর্মী টিকার প্রথম ডোজ় নিয়েছেন।

৫৩ লক্ষ ৯৪ হাজার ৯১৩ জন স্বাস্থ্যকর্মী টিকার দ্বিতীয় ডোজ়ও পেয়ে গিয়েছেন।

৯৭ লক্ষ ৩৬ হাজার ৬২৯ জন প্রথম সারির যোদ্ধা পেয়েছেন করোনা টিকার প্রথম ডোজ়।

৪৩ লক্ষ ১২ হাজার ৮২৬ জন প্রথম সারির যোদ্ধার টিকার দ্বিতীয় ডোজ় পেয়েছেন।

৬০ বছরের ঊর্দ্ধে ৩ কোটি ৫৩ লক্ষ ৭৫ হাজার ৯৫৩ জন প্রবীণ করোনা টিকার প্রথম ডোজ় পেয়েছেন।

করোনা টিকার প্রথম ডোজ় পেয়েছেন ৪৫-ঊর্ধ্ব কিন্তু ৬০ এর কম ২ কোটি ১৮ লক্ষ ৬০ হাজার ৭০৯ জন।

বৃহস্পতিবার করোনার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সুতরাং, বোঝাই যাচ্ছে যে দৈনিক টিকাকরণেও আমেরিকাকে টেক্কা দিয়ে প্রথমে রয়েছে ভারত।