Home AROHEENI SAROD SOMMAN রাসের মেলায় সার্কাসে

রাসের মেলায় সার্কাসে

195
0

সুদেষ্ণা মন্ডল , বারুইপুর :- বারুইপুরে শুরু হল ঐতিহ্যবাহী

রাসমেলা । বারুইপুর এর মদন মল্ল  প্রায় দুশো সত্তর বছর আগে

রায়চৌধুরী উপাধি লাভ করেন ।

 

বর্তমান দক্ষিণ কলকাতার বালিগঞ্জ থেকে সুদূর সাগর সহ গোটা

সুন্দরবনের পত্তনী লাভ করেন মদন রায়চৌধুরী । অবিভক্ত বাংলার

১২ ভূঞার মধ্যে অন্যতম হিসাবে জমিদারির পত্তন হয় ।

 

বাঙালির ” বারো মাসে তেরো পার্বন ” এর সব পার্বন চালু হয়

জমিদার বাড়িতে । দুর্গা , কালি , বিপদত্তারিণী পূজার পাশাপাশি

রথ ও রাস উৎসব চালু হয় দেউড়ির মাঠে ।

 

সেই মেলায় জায়গা পায় বাদাম – মক্কা , খেলনা , মাটির জিনিস ,

গাছ , সহ হরেক জিনিসের দোকান । বিশেষ করে মিষ্টির  দোকান ।

 

মেলায় বারুইপুর সহ আশপাশের কানিং , জয়নগর ,কুলতলি ,

মগরাহাট , বিষ্ণুপুর , সোনারপুর থেকে মানুষজন ভিড় জামাতো মেলায় ।

বারুইপুর বর্ধিষ্ণু  হলেও  সেসময়  রাতে, পল্লী গ্রামে ফিরে যাওয়ার

উপায় ছিলনা তাদের । ফলে রাতে খাওয়া ও পুতুল নাচের আসর বসত

মেলার মাঠে । কিন্তু কালের নিয়মে একদিন ম্লান হয়েছে সে পুতুল নাচ ।

 

স্বাধীনতার পর আস্তে আস্তে কিছুটা হলেও জৌলুস হারায়

পুতুল নাচ । কারণ দস্যু ডাকাতের ভয় কমায় মেলায় আর রাত কাটাতে

হতো না মানুষকে । এরই কয়েক বছর পর মেলায় শুরু হল  সার্কাস ।

 

তবে হাল আমলে  বিধিনিষেধের গেরোয়  সার্কাসও জৌলুস হারিয়েছে।

হারিয়েছে বাঘ , সিংহ , হাতি , ঘোড়া থেকে জলহস্তীর খেলা । বদলে

ট্র্যাপিজম আর জিমন্যাস্টিক । তবে  এবার বসেছে আফ্রিকান ডায়মন্ড সার্কাস ।

 

মেলার পাশাপাশি সার্কাসের  শুভারম্ভ হল বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় এর হাত ধরে । সার্কাস কর্তৃপক্ষের  তরফে মাধব বাবু ও আলাউদ্দিন বাবু আশাবাদী।

 

তাঁরা  বলছেন   আফ্রিকান ও ভারতীয়  খেলোয়াড়ের মেলবন্ধনে

এই সার্কাস আনন্দ দেবে দর্শকদের । সঙ্গে ছোটদের জন্য রয়েছে স্পেশাল

জোকার এর খেলা ।

জমিদারী প্রথা বিলোপ হলেও আজও ঐতিহ্যের সাথে প্রাচীন রীতি গরিমার

সঙ্গে মিলে  চলেছে বারুইপুর এর রাসমেলা ।

Previous articleফের মুখ্যমন্ত্রীকে তোপ শুভেন্দুর
Next articleবিয়েতে গুলি! পাশেই প্রশাসনিক বৈঠক