Home AGRICULTURE দিল্লি জুড়ে দূষন, চেন্নাই জলমগ্ন

দিল্লি জুড়ে দূষন, চেন্নাই জলমগ্ন

230
0

দিল্লি জুড়ে  ভয়াবহ দূষণ পরিস্থিতি আর দেশের দক্ষিনে চেন্নাই এর জলমগ্ন পরিস্থিতি।

বায়ু দূষণের মাত্রা অত্যাধিক বেড়ে যাওয়ার পাশাপাশি ভাইরাল হচ্ছে

যমুনা নদীর ভয়াবহ  অবস্থার ছবি আর খবর।

যমুনার জল দেখে মনে হচ্ছে যেন সমুদ্র। দেখলে মনে হচ্ছে  ভাসমান অবস্থায় বরফ

ভাসচ্ছে। দিল্লির তাপমাত্রা বর্তমানে যা রয়েছে তাতে বরফ জমার প্রশ্নই ওঠেনা।

জানা গিয়েছে,  এটি বিষাক্ত ফোমের স্তর যা জল দূষণের কারনে যমুনায় ছড়িয়ে

পড়েছে। শিল্প ও কারখানা থেকে নিঃসৃত স্রাব এবং নদীতে অ্যামোনিয়া ও ফসফেট এর

মাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে এই অবস্থা বলে জানিয়েছে দিল্লির জল বোর্ড । এই স্রাব প্রতি

নিয়ত প্রতি  মিলিয়ন মিশেছে যমুনা নদীতে ।

আগেই  দিল্লি বিপর্যয় ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ (DDMA) এ বছর যমুনার তীরে ছট পূজা

নিষিদ্ধ করেছে। তাতেও ভক্তিতে বাধা পরে নি । পুজো উপলক্ষে পুণ্যার্থীরা এই বিষাক্ত জলে

স্নান করছেন। এবং পূজোও সাড়ছেন।

তবে DDMA অবশ্য দিল্লির যমুনার তীর বাদ দিয়ে “নির্ধারিত স্থানে” ছট উদযাপনের

অনুমতি দিয়েছে। হলে হবে কি ? যমুনার জল আর দিল্লির দূষন এর  থেকেও রাজনৈতিক

দূষন এতো বেশি যে রাজনৈতিক  চাপান উতোরে জল ঘোলা মাত্রা ছাড়িয়েছে ।

অন্য দিকে লাগাতার  বৃষ্টির জেরে লাল সর্তকতা জারি চেন্নাইয়ে। বৃহস্পতিবারও

চেন্নাইয়ে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা।  দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও পার্শ্ববর্তী

এলাকায় ঘূর্ণা বর্ত তৈরি হওয়ায়  বঙ্গোপসাগরে  নিম্নচাপের সৃষ্টি । ফলে আগামী কয়েকদিন

ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে।

ঘূর্ণিঝড় সঞ্চালন গড় সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 4.5 কিমি পর্যন্ত বিস্তৃত। এটি পরবর্তী ১৮ ঘন্টার

মধ্যে দক্ষিণ-পূর্ব এবং তৎসংলগ্ন দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপে ঘনীভূত হওয়ার

খুব সম্ভাবনা রয়েছে।

বুধবারই কুড্ডালোর, ভিলুপুরম, শিবগঙ্গা, রামানাথপুরম এবং কারাইকাল-এ রেড এলার্ট

জারি করা হয়েছিল।

বৃহস্পতিবারের জন্য, তিরুভাল্লুর, চেন্নাই, কাঞ্চিপুরম, চেঙ্গলপাট্টু, ভিলুপ্পুরম এবং

তিরুভান্নামালাই জেলাগুলিতেও নতুন করে রেড এলার্ট জারি হল।

আইএমডি চেন্নাইয়ের পূর্বাভাস অনুসারে, আগামী 13 নভেম্বর পর্যন্ত শহরে ভারী থেকে অতি

ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

মৎস্যজীবীদের 11 নভেম্বর পর্যন্ত দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু উপকূল এবং সংলগ্ন শ্রীলঙ্কা

উপকূলের দিকে না যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

Previous articleসুব্রত মুখোপাধ্যায় ও কংগ্রেসের কঙ্কাল
Next articleমালালাকে শুভেচ্ছা প্রিয়াঙ্কার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here