July 29, 2021

আকস্মিক বন্যায় তছনছ ধর্মশালা

আকস্মিক বন্যায় জেরবার ধর্মশালা। মেঘ ভেংগেই এমন বিপর্যয় ।  গত কয়েক দিন ধরে অবিচ্ছিন্ন বৃষ্টিপাতের ফলে তীব্র বন্যার কবলে

হিমাচল প্রদেশের ধর্মশালার মক্লেওদগঞ্জ ও তার পারিপার্শিক এলাকা।

 

আবহাওয়া দপ্তর ইতোমধ্যেই ,১২ই এবং১৩ই জুলাই ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে।

১৪ এবং ১৫ই জুলাই তে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা  নিয়েও তীব্র ভাবে সতর্ক করেছে আবহাওয়া দপ্তর।

 

১২ এবং ১৩ই জুলাই এর জন্য “অরেঞ্জ ওয়ার্নিং”জারি করা হয়েছে।

১৪ এবং ১৫ই জুলাই এর জন্য ও “ইয়েলো ওয়ার্নিং ” জারি করা হয়েছে আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে ।

 

কংরা জেলায় মেঘ ফেটে বৃষ্টির  একটি ঘটনার কথা ও ইতিমধ্যেই সামনে এসেছে।  এই ঘটনা বর্তমানে এক বিপজ্জনক বন্যার আকার ধারণ করেছে।

 

ভাগসু নাগ অঞ্চলে তেও এই  একই রকম ঘটনা ঘটে।

 

ধর্মশালায় এই বন্যার স্রোতে ,দাড়িয়ে থাকা বহু যানবাহন ভেসে যায়।এছাড়াও এই প্রক্রিয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হয় একাধিক বাড়ি,দোকান এবং হোটেল ।

 

পাওয়া খবর অনুযায়ী,ভারী বৃষ্টিপাতের ফলস্বরূপ শিমা জেলার রামপুর এলাকার ঝাকড়ি অঞ্চলের কাছে আটকে পরে জাতীয় মহাসড়ক ।আটকে  পড়া জাতীয় মহাসড়ক টি যানবাহন এর জন্য খোলানোর লক্ষে ইতিমধ্যেই সরকারি আধিকারিকরা সেখানে কাজ করা শুরু করে দিয়েছেন।

 

ভারতীয় আবহাওয়া দপ্তর (আইএমডি)র দেয়া বিবৃতি অনুযায়ী , রাজ্যে চলতি সপ্তাহের আগামী দিনগুলি তে এর চেয়ে ও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

 

এই আকস্মিক বন্যার ভয়াবহতার  বহু ভিডিও ফুটেজ ইতিমধ্যেই সমস্ত  টুইটার জুড়ে ছড়িয়ে গেছে।

এই ঘটনায় সন্ত্রস্ত হয়েছেন হাজারো দেশবাসী।

 

এ.এন.আই  তাদের টুইটার হ্যান্ডেলে প্রথম এই ঘটনার ভিডিও প্রকাশ করে।তারপর থেকে প্রচুর স্থানীয় মানুষ অনুরূপ ভিডিও শেয়ার করেছেন।

 

এই বীভৎস আপৎকালীন পরিস্থিতি কাটিয়ে ধর্মশালার সাধারণ জনজীবনে ফিরতে সময় লাগবে তা বলাই বাহুল্য।

 

স্থানীয় মানুষ এবং পর্যটক দের কে সময় মতো  সুরক্ষিত জায়গায় নিয়ে যাওয়ার ফলে বড় বিপর্যয়ের হাত থেকে বেঁচেছেন বহু  মানুষ ।