Home HEADLINE STORY নভজোৎ সিং সিধুর নয়া ঠিকানা পাতিয়ালা জেল

নভজোৎ সিং সিধুর নয়া ঠিকানা পাতিয়ালা জেল

107
0

ডেস্ক মিরর, নয়া দিল্লি : হঠাৎ করে পাল্টে গেল জীবনের অঙ্গভঙ্গি। মাথার উপর ভেঙ্গে পরলো সাজানো-গোছানো নাম খ্যাতি ঐশ্বর্য। পাল্টে গেল নিজের পরিচয়টুকুও। কিছুদিন আগেই তিনি ছিলেন পাঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি। তাঁর সঙ্গে ছিলেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার। কিন্তু এখন তিনি হয়ে গেলেন পাতিয়ালা জেলের কয়েদি নম্বর ২৪১৩৮৩।  সুদিন যে এখন চোখের নিমিষে চলে গিয়েছে বহুদূর। কারণ  শুক্রবার থেকে পাটিয়ালা জেল নয়া ঠিকানা হয়েছে নভজোৎ সিং সিধুর। শুক্রবার পাতিয়ালা জেলে আত্মসমর্পণ করেছেন সিধু।

প্রসঙ্গত চলতি সপ্তাহে ৩৪ বছর পুরনো ১৯৮৮ সালের পথ হিংসা মামলায় সুপ্রিম কোর্ট দোষী সাব্যস্ত করেন সিধুকে। আর সেই কারণেই সুপ্রিম কোর্ট এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের সাজা ঘোষণা করেন। আর তাই শুক্রবার আত্মসমর্পণ করেছিলেন সিধু। যদিও সকাল থেকেই তিনি নানা টালবাহানা করলেও বিকেল হতেই শেষ পর্যন্ত পাতিয়ালা আদালতে আত্মসমর্পণ করেন সিধু। এরপরে এই প্রবীণ নেতার ঠাঁই হয় পাতিয়ালা জেলে ৭ নম্বর ব্যারাকে।

জানা গিয়েছে, সিধুকে দেওয়া হয়েছে একটি টেবিল , একটি চেয়ার, দুটি পাগড়ী, একটি কম্বল, তিনসেট জামা ,একটি তোয়ালি ও একটি মশারি, একটি পেন, একটি নোটবুক একজোড়া জুতা, এবং দুটি বিছানার চাদর।

অন্যদিকে ভোর পাঁচটায় তাকে উঠে যেতে হবে ঘুম থেকে জেলের নিয়ম অনুযায়ী। সকাল সাতটায় তাকে দেওয়া হবে চা বিস্কুট। সকাল আটটায় দেওয়া হবে সকালের খাবার। ছটি রুটি, ডাল এবং একটি সবজি। এরপর অন্য কয়েদিদের মতোই জেলে সমস্ত কাজ করতে হবে। দুপুরে দেওয়া হবে মধ্যাহ্নভোজ। তারপর বিকেল পাঁচটার মধ্যে সমস্ত কাজ শেষ করতে হবে আর পাঁচটা কয়েদিদের মতো। এবং তারপরেই সন্ধে ছটায় দেওয়া হবে নৈশভোজ। সব মিলিয়ে এটাই হলো এখন প্রাক্তন কংগ্রেস নেতার নতুন জীবন।

Previous articleজ্ঞানবাপী মসজিদ মামলা – গ্রেফতার অধ্যাপক
Next articleলুপ্তপ্রায় কচ্ছপ বাঁচাতে বিশেষ উদ্যোগ বনদপ্তরের