Home HEADLINE STORY ভোট নয় কোভিড আগেঃমমতা

ভোট নয় কোভিড আগেঃমমতা

25
0

রাজ্যে কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে ফের একবার বহিরাগত তত্ত্ব উগড়ে কেন্দ্রকে একহাত নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দুর্গাপুর থেকে ভার্চুয়াল সভা থেকে বললেন,

২ লক্ষ বাইরের ফোর্স পড়ে আছে,

বিজেপির বিভিন্ন রাজ্যের মন্ত্রী পড়ে আছে,

কারও আরটি-পিসিআর হয়নি, এদের জন্য কোভিড ছড়াতে পারে।

ভ্যাকসিন নিয়েও এদিন মোদি সরকারকে তুলোধনা করেন তৃণমূল নেত্রী।

তিনি বললেন,

৬০ শতাংশ ভ্যাকসিন পেয়েছে গুজরাত, অন্য রাজ্য কম পেয়েছে,  ভ্যাকসিন দেওয়া হোক, রেট বেঁধে দেওয়া হোক।

 

পাশাপাশি, বিদেশে ওষুধ পাঠানো নিয়েও কেন্দ্রকে একহাত নেন মমতা।

 

মানুষের জীবনের জন্য ২০ হাজার কোটি টাকা দেওয়া ১ সেকেন্ডের ব্যাপার।

অন্যান্য দেশে ওষুধ পাঠিয়ে দেওয়ার মত গুরুতর অভিযোগ তোলেন কেন্দ্রের বিরুদ্ধে।উল্লেখ করেন

এটা খুব বড় ধরনের গাফিলতি, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশের পরও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

কেন্দ্রের গাফিলতির জন্য দেশে কোভিডের এই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

তৃণমূলনেত্রী বলেন,

গত ৭ মার্চ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন বলেছিলেন, করোনা চলে গেছে, তার মানে তাদের কাছে আইবি বা এক্সপার্টের রিপোর্ট ছিল না।

‘হু’ অক্সিজেন নিয়ে পরিকল্পনা করতে বলেছিল কেন্দ্রকে, কিন্তু প্রধানমন্ত্রী রাজ্যগুলিকে এটা জানাননি।

প্রধানমন্ত্রী মিটিং করছেন, তিনি আমন্ত্রণ পান নি বলে জানান।

মমতার আশ্বাস,

কোভিড-ঝড় সামাল দেওয়া যাবে।

ইলেকশনের থেকেও কোভিড  অগ্রাধিকার।

আরও প্রাইভেট হাসপাতালকে কাজে লাগানোর জন্য মনিটারিং করা হচ্ছে, এরপর বহরমপুর ,  বীরভূম, কলকাতার মিনার্ভা হল থেকে ভার্চুয়ালি মনিটারিং করা হবে।

মানুষের প্রতি মমতার আবেদন,

কোভিড বিধি মেনে চলুন।

কোভিড যাদের হয়েছে অযথা আতঙ্কিত হবেন না, যাদের অবস্থা গুরুতর তারা হাসপাতালে ভর্তি হোন,

আগেরবারের মত এবারও কোভিড  ঠিক নিয়ন্ত্রণে  আসবে।

 

Previous articleরেকর্ড সংক্রমণ করোনার
Next articleবাতিল হল ইন্ডিয়ান ওপেন