Home HEADLINE STORY শুরু তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ – বড় ঘোষণা রুশ টিভি চ্যানেলের

শুরু তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ – বড় ঘোষণা রুশ টিভি চ্যানেলের

297
0

ডেস্ক মিরর, নয়া দিল্লি : দিনের পর দিন চলতে থাকা বিধ্বংসী এই যুদ্ধের শেষ নেই। সকলেই দিন গুনছে কবে যুদ্ধ শেষ হবে। সেই আশায় এবার কার্যত জল ঢেলে দিল মস্কো। এদিন রাশিয়ার সরকারি টিভি চ্যানেল এক বড় ঘোষণা করল। এদিন সরকারি চ্যানেলে তরফে জানানো হয়েছে, রুশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ মস্কভা ধ্বংস হওয়ার পরই তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়ে গিয়েছে। কারণ রাশিয়া তাদের যুদ্ধজাহাজ মস্কভা ধ্বংস হওয়াকে সহজভাবে মেনে নিতে পারছে না। কারণ এই যুদ্ধজাহাজটির বহু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। বিশ্বযুদ্ধ শুরু হওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন মস্কোর সরকারি সংবাদমাধ্যমের সঞ্চালক ওল্গা স্কাবিয়েভা। এই যুদ্ধজাহাজটি ধ্বংস করার অভিযোগ রয়েছে ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে। কৃষ্ণ সাগরে রাশিয়ার এই যুদ্ধ জাহাজটিকে ইউক্রেনে সেনাবাহিনী ধ্বংস করে দিয়েছে।

কিন্তু অন্যদিকে যুদ্ধজাহাজ টিকে ইউক্রেন গুঁড়িয়ে দিয়েছে তা মানতে নারাজ রাশিয়া। তাদের দাবি আগুন লেগেছিল জাহাজে। তার ফলে জাহাজের ভেতরে থাকা বোমার থেকেই বিস্ফোরণ ঘটে।

তবে হামলার কথা অস্বীকার করলেও রাশিয়া কিন্তু বেজায় ক্ষুব্ধ হয়ে রয়েছে। সেই কারণেই যুদ্ধজাহাজ ধ্বংসের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পাল্টা ইউক্রেনের উপর আরও বড়সড় আঘাত হানল মস্কো। ফলস্বরূপ কিভ এর কাছে নেপচুন ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির কারখানা গুঁড়িয়ে দিল রাশিয়া।

প্রসঙ্গত সরকারি সংবাদমাধ্যমের সঞ্চালক ওল্গা স্কাবিয়েভা এদিন বলেন, কৃষ্ণ সাগরে রুশ যুদ্ধজাহাজ  ধ্বংসের পর থেকেই স্পষ্ট তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়ে গিয়েছে। পাশাপাশি তিনি বলেন, ইউক্রেনের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকে কোনও পদক্ষেপ নেয়নি ন্যাটো। এমনকি আমেরিকাও হাত গুটিয়ে বসে ছিল। কিন্তু এখন ইউক্রেনকে সামরিক অস্ত্র দিয়ে সাহায্য করছে তারা। তার জন্য ইউক্রেনে ঘনঘন যাচ্ছে একাধিক রাষ্ট্রে নেতা। যার জন্য বেজায় ক্ষুব্ধ ক্রেমলিন।

ওল্গা বলেন, হয়তো সরাসরি ন্যাটোর বিরুদ্ধে যুদ্ধ চলছে না ঠিকই। কিন্তু আমরা এখন ন্যাটোর পরিকল্পনার বিরুদ্ধে লড়ছি। অর্থাৎ সোজাসুজিভাবে বলতে গেল,   ইউক্রেন যে রাশিয়ার যুদ্ধ জাহাজ ধ্বংস করার সাহস দেখিয়েছে তার পেছনে রয়েছে ন্যাটোর ভূমিকা। যার কারনেই শুরু হয়ে গেছে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ।

উল্লেখিত ,রুশ সংবাদমাধ্যমের এই খবর রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা নিয়ে নতুন করে বিতর্ক দানা বাঁধছে।

Previous articleনতুন দুনিয়ার স্বপ্নে টেকনো এক্সপোনেন্ট
Next article১০৮ ফুটের হনুমান মূর্তি উন্মোচন মোদীর