Home শনিবাসর স্ট্যান্ডিং লাইন

স্ট্যান্ডিং লাইন

83
0
-কৌশিক দাস
অষ্টম শ্রেণিতে আমাদের ইতিহাসের ক্লাস নিতেন বিজন বাবু।
সাদা ধুতি পাঞ্জাবি পরে তিনি যখন সপ্তম পিরিওডে আসতেন , আমরা
অনেকেই ক্লান্তিতে ঈষৎ ঝুঁকে বসতাম।
ঋজু চেহারার শান্ত সৌম্য বিজন বাবু সস্নেহে বলতেন –
‘বাপা সকল সোজা হয়ে বসো, শিরদাঁড়া সোজা রাখতে হয়, মাথা উঁচু করে রাখবে। ‘
বলেই উঠে দাঁড়িয়ে ব্লাকবোর্ডে একটি স্ট্যান্ডিং লাইন এঁকে বলতেন -‘এমনই সোজা হও দেখি… ‘
তারপর স্ট্যান্ডিং লাইনটিকে বোর্ডে রেখেই তিনি পড়িয়ে যেতেন মাস্টার দা সূর্য সেন,
ক্ষুদিরাম বসু ও বিনয় -বাদল -দিনেশের কথা। আমরাও যথাসম্ভব সোজা হয়ে বসে শুনে যেতাম
স্বাধীনতার উত্তাল কালবেলার কাহিনী, কতদিন শিরদাঁড়া দিয়ে বয়ে গেছে গরম স্রোত।
তারপর কেটেছে বহু বছরের রাত্রিদিন। জটিল থেকে জটিলতর অভিঘাতে ঝুঁকে যেতে যেতে
যখনই নুইয়ে পড়েছি নটে গাছের মত, মনে হয়েছে মহাকালের ওপার থেকে কারো উদাত্ত কন্ঠ –
‘বাপা সকল,সোজা হও। ‘
এই অপসৃয়মাণ জীবনে মুছে গেছে অসংখ্য দিন, পাড়া গাঁর স্কুল, কত শত প্রিয় মুখ, লালিত স্বপ্ন,
আশা আকাঙ্খা আরও কত কি! শুধু বিকেলের পড়ন্ত রোদে একটি ইতিহাসের ক্লাসে কবেকার
ব্লাকবোর্ডে আঁকা একটা দাগ- মোছেনি এখনও।।
Previous articleফুসফুস প্রতিস্থাপন রাজ্যে।
Next articleকোনো একদিন