July 29, 2021

জয়ী হয় ভালবাসা

(এক প্রিয় বন্ধুর জীবনের বাস্তব অভিজ্ঞতা কে আশ্রয় করে সমাজের অবস্থানকে তুলে ধরা)

-প্রণবেশ চক্রবর্তী

সদ্যোজাত শিশুটিকে দেখে তুমি কি সেদিন মুখ ঘুরিয়েছিলে চূড়ান্ত অবহেলায়?
কোন মানসিক অবস্থা তোমাকে টেনে নিয়ে গেলো সামন্ত চিন্তার
চোরাগলিতে?–জানিনা।
সদ্যোজাত শিশুটি জন্ম নিয়েছে
একটা মেয়ে হয়ে।
তাতে তোমার হতাশ হবার চিন্তা
কোন মানবিকতার আগল ছিঁড়ে
স্থান নিল অন্ধকারের এক অজানা কুঠুরিতে!
তুমি তো এক পিতা।
আনন্দের উচ্ছাস কে চুরি করে নিয়ে গেল এক সামন্ত মানসিকতার বন্ধ অন্ধকারের
কানাগলিতে?—-জানিনা।
মেয়ে শিশু যখন ধীরে ধীরে কিশোরী হয়ে বেড়ে উঠছে—
ভাই এর জন্মদিন দেখে আবেগমথিত মেয়ে আকুল চোখে প্রশ্ন করে ——আমার জন্মদিন হবেনা?
অতর্কিতে ক্রূর হাসিতে মুখ ঘোরাও অন্যপানে।
যন্ত্রনায বিদ্ধ হয় কোমল হৃদয়!
তোমার তাচ্ছিল্য কিশোরীর মনে জন্মদেয অযাচিত এক নতুন চিন্তার—যার নাম স্নাযবিক অবসাদ।
এক অভাবনীয় মানসিক ধাক্কায, যন্ত্রণায় কিশোরীর জায়গা হয়—-
হাসপাতালের বিছানায়!!
এখনও সে অকথিত যন্ত্রণায় ছটফট করে তোমার একটুকরো ভালবাসার কাঙালিনী হয়ে!
তুমি আস্তিক না নাস্তিক জানিনা–
জানার সে অবকাশ ও নেই—
তোমার মা,ঠাকুমা দিদিমা,
কাকিমা, জ্যেঠিমা , পিসি, মাসি
এরাও তো মেয়ে!
দুর্গা, কালী ,লক্ষ্মী, সরস্বতী
এনারা? এনারাও তো মেয়েই!!
কোন অনুভবে তুমি সারা বিশ্বের
ভালবাসার আবেগমথিত বাবাদের ছুঁড়ে দিলে গহীন অন্ধকারে?
কিন্ত তোমার চিন্তা হার মেনেছে মেয়েদের প্রতি অন্য পিতাদের উষ্ণ চুম্বনে ।
বুঝলেনা তুমি ,
ভালবাসার আবেগ
জিতে গেছে চিরকালই।
কৈশোর উত্তীর্ণ সদ্য যুবতী মেয়ে
যখন জীবনকে নিজের পায়ে দাঁড় করানোর তাগিদে দূর রাজ্যে পাড়ি দেয়—-অদ্ভুত অবহেলায
তখনও নিশ্চুপ তুমি!!
একবার জোরের সঙ্গে বলে উঠলো না তোমার কন্ঠস্বর—-
যাসনা, সোনা মা আমার
আমরা এখানেই থাকব, এখানেই বাঁচব আমাদের মতো করে!!
এ কিসের অভিমান, অনুযোগ তোমার?
অথচ তুমি গুরুতর অসুস্থ সংবাদে —-
দূর রাজ্য থেকে ছুটে আসে তোমার সেই ছোট্ট মেয়ে-,
হৃদয় বিদারক কান্নায় আছড়ে পড়ার মধ্যে
এ আবেগ , এই চিন্তার মাঝে
ভালবাসা দেখলে না তুমি
তখন তুমি পাড়ি দিয়েছ
অন্য এক অজ্ঞাত দ্বীপের সন্ধানে!
ভ্রান্ত মানসিকতা জেতেনি-
জিতেছে আবেগ, অনুভূতি আর
জয়ী হয়েছে ‘ ভালবাসা’।